আজ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:
বিআরটিসি’র বিরুদ্ধে বিভিন্ন ফেসবুক আইডি থেকে অপতৎপরতাকারীদের বিরুদ্ধে সাইবার আদালতে মামলা। চেয়ারম্যান তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে ঘুরে দাঁড়ালো বিআরটিসি। এডভোকেট সোহানা তাহমিনার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা উচ্চ আদালতে। মুন্সিগঞ্জ-২ আসনে ট্রাক প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন এড, সোহানা তাহমিনা। লৌহজংয়ে নানা আয়োজনে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালিত। মুন্সীগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ও বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী পালিত হল মহান বিজয় দিবস। লৌহজং উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে বিজয় দিবস উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী মেলার আয়োজন। লৌহজংয়ে আদালতের রায় অমান্য করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ, মানবেতর জীবন-যাপন ভুক্তভোগী পরিবার। লৌহজংয়ে ভাওতা দিয়ে লবণের বিনিময়ে সর্বস্ব লুট! লৌহজংয়ে ৫ জয়িতার সম্মাননা লাভ।
||
  • Update Time : আগস্ট, ২৮, ২০২৩, ৭:১১ পূর্বাহ্ণ

বরিশালে ৭ সাংবাদিকের ওপর অতর্কিত হামলায় জেএসএস’এর নিন্দা ও প্রতিবাদ!

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের ছাত্রী নিবাসে দুই শিক্ষার্থীকে র‍্যাগিং এর ঘটনায় সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে ৭ জন সাংবাদিক হামলা ও লাঞ্ছনার শিকার হওয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা (জেএসএস)’র কেন্দ্রীয় কমিটির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ। হামলার সঙ্গে জড়িত দুই শিক্ষক ও অন্যান্যদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে শাস্তির মুখোমুখি করার জোর দাবি জানান জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা (জেএসএস)’এর নেতৃবৃন্দরা।

আজ সোমবার (২৮ আগস্ট) এক বিবৃতিতে জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা (জেএসএস)’এর নেতৃবৃন্দরা এ দাবি জানান।

পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী গত বুধবার রাতে ছাত্রলীগ নেত্রীদের হাতে নির্যাতনের শিকার হন দুই ছাত্রী। শনিবার নির্যাতিত দুই ছাত্রীর জবানবন্দী নিচ্ছিলেন কর্তৃপক্ষ। এ সময় বেশ কয়েকটি টেলিভিশন চ্যানেলের সাংবাদিক নির্যাতিত ছাত্রী ও তাঁদের মায়ের বক্তব্য নিতে যান। তখন কয়েকজন শিক্ষক সন্ত্রাসী কায়দায় তাদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন এবং সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাধা দিয়ে লাঞ্ছিত করেন । টেলিভিশন চ্যানেলের ক্যামেরাও ভাঙচুর করেন হামলাকারীরা।

লাঞ্ছিত সাংবাদিকেরা হচ্ছেন- চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের কাওসার হোসেন রানা ও রুহুল আমিন, এশিয়ান টিভির ফিরোজ মোস্তফা ও আজিম, সময় টিভির শাকিল মাহমুদ ও সুমন হাসান এবং বাংলা নিউজের মুশফিক সৌরভ।

বিবৃতিতে জেএসএস’এর নেতারা বলেন, মেডিকেল কলেজে শিক্ষকতা যারা করেন তারা চিকিৎসার মতো মহান ও মানবিক পেশায় নিয়োজিত। তাদের কাছে মানবিকতা, ধৈর্য ও সংযম প্রত্যাশিত। সাংবাদিক ও চিকৎসকরা বরাবরই সহযোগী হিসেবে কাজ করেন। কিন্তু সংবাদ সংগ্রহে যাওয়া সংবাদকর্মীদের সঙ্গে দু’জন শিক্ষক যে আচরণ করেছেন তা দেখে আমরা বিস্মিত ও স্তম্ভিত। হামলার ঘটনার ভিডিও ইতিমধ্যেই সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দুই চিকিৎসকের মারমুখি ও সন্ত্রাসী আচরণ দেখে বুঝতে কষ্ট হয়, তাঁরা শিক্ষার্থীদের কী শেখাচ্ছেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, কাউকে দৈহিক ভাবে আঘাত করা এবং পেশাগত কাজে বাধা দেওয়া ফৌজদারি অপরাধ। এ অপরাধে তাদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করা জরুরী।

এদিকে পৃথক এক বিবৃতিতে ৭ জন সাংবাদিকের ওপর অতর্কিত হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বরিশাল বিভাগ ও জেলা শাখার জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার সকল নেতৃবৃন্দ পাশাপাশি এই নেক্যার জনক ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত দোষীদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন