আজ ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:
বিআরটিসি’র বিরুদ্ধে বিভিন্ন ফেসবুক আইডি থেকে অপতৎপরতাকারীদের বিরুদ্ধে সাইবার আদালতে মামলা। চেয়ারম্যান তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে ঘুরে দাঁড়ালো বিআরটিসি। এডভোকেট সোহানা তাহমিনার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা উচ্চ আদালতে। মুন্সিগঞ্জ-২ আসনে ট্রাক প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন এড, সোহানা তাহমিনা। লৌহজংয়ে নানা আয়োজনে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালিত। মুন্সীগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ও বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী পালিত হল মহান বিজয় দিবস। লৌহজং উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে বিজয় দিবস উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী মেলার আয়োজন। লৌহজংয়ে আদালতের রায় অমান্য করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ, মানবেতর জীবন-যাপন ভুক্তভোগী পরিবার। লৌহজংয়ে ভাওতা দিয়ে লবণের বিনিময়ে সর্বস্ব লুট! লৌহজংয়ে ৫ জয়িতার সম্মাননা লাভ।
||
  • Update Time : জানুয়ারি, ১২, ২০২২, ৭:০২ পূর্বাহ্ণ

নড়াইলের কালিয়ার খামার পারোখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যপক অনিয়মের অভিযোগ!

মোঃ হাচিবুর রহমান,কালিয়া,নড়াইলঃ নড়াইলের কালিয়া উপজেলার খামার পারোখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মল্লিক আলী আকবরের বিরুদ্ধে ব্যপক দুর্ণীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। নতুন শ্রেণীতে ভর্তিতে বেশী টাকা নেওয়া, শিক্ষার্থী বা অভিভাবককে টাকা আদায়ের রশিদ না দেওয়া, বার্ষিক পরীক্ষার নাম করে অতিরিক্ত অর্থ আদায়, এসাইনমেন্টে ১৪ শত টাকা দাবি করাসহ ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন না দিয়ে ও অভিভাবকদের সাথে মতবিনিময় না করে নিজের পছন্দমত অনিয়মতান্ত্রিকভাবে পকেট কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার অভিযোগ করেছেন শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও স্থাণীরা। ৯ ডিসেম্বর (রবিবার) সরেজমিনে গেলে অভিযোগের সত্যতা মেলে। তারা জানান স্কুলে রশিদ বই থাকলেও রশিদ চাইলে দেওয়ার নিয়ম নাই বলে তাড়িয়ে দেন। বার্ষিক পরীক্ষায় ২২শত টাকা করে নিয়েছেন বিভিন্ন ভাবে বকেয়া দেখিয়ে। নতুন শ্রেণীতে ভর্তিতে সেশন চার্জ ৫০০ টাকা ও রশিদ বইয়ের ২০ টাকাসহ মোট ৫২০ টাকা নেওয়ার কথা থাকলেও তিনি ষষ্ঠ-অষ্টম শ্রেনী পর্যন্ত ৭শত ৮০ টাকা ও ৯ম শ্রেনীতে ৮শত টাকা ভর্তি বাবদ নিচ্ছেন। খামার গ্রামের জাহিদ মুন্সীর মেয়ে শান্তা জানায়, তারা দুই ভাই বোন ওই স্কুলে ৯ম শ্রেনীতে ভর্তি হতে গেলে ২৯৪০ টাকা করে লাগবে বলে জানান ওই প্রধান শিক্ষক। পরবর্তীতে তাদের মা এসে টাকা বাকি রেখে ১৪০০ টাকা দিয়ে ভর্তি করে যায়। কিন্তু তাদের কোন রশিদ দেওয়া হয়নি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষার্থী ও অভিভাবক এ সকল অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিহীত ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ জানিয়েছেন।

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকের নিকট অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রশিদ এখনো আসে নাই তাই রশিদ দেওয়া হচ্ছেনা। বার্ষিক পরীক্ষায় ২২শত টাকা নেওয়ার কথা ও নতুন শ্রেণীতে ভর্তিতে বেশী টাকা নেওয়ার ব্যপারে জানতে চাইলে তিনি গোজামিলে বোঝানোর চেষ্টা করেন। এছাড়া অন্যান্য অভিযোগের সত্যতা অস্বীকার করে কাজ আছে বলে তিনি সাংবাদিকদের এড়িয়ে যান।

এ বিষয়ে ওই স্কুলের সাবেক সভাপতি ও ইলিয়াছাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মল্লিক মনিরুল ইসলাম বলেন, নির্বাচিত হওয়ার পরে আমি ওই স্কুলে গিয়েছিলাম। আমি শুনেছি যে, অভিভাবকদের টাকা আদায়ের রশিদ না দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে এবং নিয়ম বহির্ভূতভাবে ম্যানেজিং কমিটি গঠনের চেষ্টা চলছে। শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। আর সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এমন দুর্ণীতি মোটেই কাম্য নয়। আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ জানাচ্ছি।
এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ শাহ্জাহান মিয়া বলেন, প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের লিখিত কোন কপি পেলে প্রমান সাপেক্ষে তিনি আইনানুগ ব্যবস্থা নিবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন