আজ ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:
বিআরটিসি’র বিরুদ্ধে বিভিন্ন ফেসবুক আইডি থেকে অপতৎপরতাকারীদের বিরুদ্ধে সাইবার আদালতে মামলা। চেয়ারম্যান তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে ঘুরে দাঁড়ালো বিআরটিসি। এডভোকেট সোহানা তাহমিনার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা উচ্চ আদালতে। মুন্সিগঞ্জ-২ আসনে ট্রাক প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন এড, সোহানা তাহমিনা। লৌহজংয়ে নানা আয়োজনে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালিত। মুন্সীগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ও বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী পালিত হল মহান বিজয় দিবস। লৌহজং উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে বিজয় দিবস উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী মেলার আয়োজন। লৌহজংয়ে আদালতের রায় অমান্য করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ, মানবেতর জীবন-যাপন ভুক্তভোগী পরিবার। লৌহজংয়ে ভাওতা দিয়ে লবণের বিনিময়ে সর্বস্ব লুট! লৌহজংয়ে ৫ জয়িতার সম্মাননা লাভ।
||
  • Update Time : অক্টোবর, ২৪, ২০২৩, ১০:০৭ পূর্বাহ্ণ

নড়াইলে কালাম বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী।

মোঃ হাচিবুর রহমান,নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইল সদর উপজেলার চন্ডিবরপুর ইউনিয়ন এর পাইকমারী গ্রামে কালাম বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকার সাধারণ মানুষ। দীর্ঘদিন যাবত বাহিনী প্রধান কালাম মোল্যা সাধারণ গ্রামবাসীকে দলীয়ভাবে বিভক্তি করে তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে অত্যাচার করে আসছেন বলে জানা যায়। তার কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করতেও ভয় পায় ভুক্তভোগীরা। কালাম মোল্যা ওই গ্রামের মৃত দলিল উদ্দিন মোল্যার ছেলে।

ভুক্তভোগী সুত্রে জানা যায় দীর্ঘ দিন যাবত কালাম মোল্যা ওই গ্রামের পূর্ব পাড়া নিয়ন্ত্রণ করে সন্ত্রাসী রাজত্ব কায়েম করে আসছেন। এরই ধারাবাহিকতায় তার কিশোর গ্যাং ও সন্ত্রাসী বাহিনী চুরি ও মাদক কারবার করে আসছে, ইতিপূর্বে চুরি ও মাদক মামলায় ওই বাহিনীর আইউবের ছেল আলামিন, হালিমের ছেল ফিরোজ ও আলমগীর, বাচ্চু মোল্লার ছেলে আনোয়ার ও দেলোয়ার, সাইফুল কাজির ছেলে মইন সহ অনেকেই আটক হয়।

চলতি মাসের ১৩ তারিখে প্রতিপক্ষের বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করে এবং অনেককে আহত করেছে ওই বাহিনীর সন্ত্রাসীরা। এঘটনায় মোসা: নাসরিন নাহার বাদি হয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ১৭১/২৩। মামলাটি বর্তমানে চলমান রয়েছে। এ ঘটনা আমিন টেলিভিশনে প্রচারিত হলে আমিন টেলিভিশন এর নির্বাহি সম্পাদক একই ইউনিয়ন এর নিধিখোলা গ্রামের মো: খায়রুজ্জামানের ছেলে সৌদি প্রবাসী মো: আমিনুর রহমানকে ফেসবুক ম্যাসেন্জার কলে স্বপরিবারে হত্যার হুমকি দেয় ওই বাহিনীর মনির মোল্লার ছেলে সন্ত্রাসী সজল ও কামরুল মোল্লার ছেলে ইসহাক। এ ঘটনায় মো: আমিনুর রহমান এর পিতা মো: খায়রুজ্জামান নড়াইল সদর থানার সাধারণ ডাইরি করেছেন। যাহার নং ৬৭৬।

এ ছাড়া গত কিছু দিন আগে কালাম বাহিনীর হামলার স্বীকার হয় একই গ্রামের সেকন সরদার, তার পূর্বে ওই বাহিনী পার্শ্ববর্তী মহিষখোলা গ্রামে হামলা চালিয়ে অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট করে এবং গুরুতর আহত হয় সেলিম মোল্লা ও তার ছেলেরা সহ আরো অনেকে। এঘটনায় সেলিম মোল্লার স্ত্রী বাদি হয়ে নড়াইল সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। যাহা এখনো চলমান। ইতিপূর্বে কালাম বাহিনীর অত্যাচারের স্বীকার হয়েছে পার্শ্ববর্তী ফেদি সহ কয়েক গ্রামের নিরীহ মানুষ।

এ বিষয়ে এলাকায় শান্তি রক্ষার্থে প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা সহ কালাম বাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের জোর দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
এবিষয়ে অভিযুক্ত কালাম মোল্লার সাথে মুঠোফোনে
(01725-***636) একাধিকবার ফোন দিলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন