আজ ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:
বিআরটিসি’র বিরুদ্ধে বিভিন্ন ফেসবুক আইডি থেকে অপতৎপরতাকারীদের বিরুদ্ধে সাইবার আদালতে মামলা। চেয়ারম্যান তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে ঘুরে দাঁড়ালো বিআরটিসি। এডভোকেট সোহানা তাহমিনার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা উচ্চ আদালতে। মুন্সিগঞ্জ-২ আসনে ট্রাক প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন এড, সোহানা তাহমিনা। লৌহজংয়ে নানা আয়োজনে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালিত। মুন্সীগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ও বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী পালিত হল মহান বিজয় দিবস। লৌহজং উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে বিজয় দিবস উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী মেলার আয়োজন। লৌহজংয়ে আদালতের রায় অমান্য করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ, মানবেতর জীবন-যাপন ভুক্তভোগী পরিবার। লৌহজংয়ে ভাওতা দিয়ে লবণের বিনিময়ে সর্বস্ব লুট! লৌহজংয়ে ৫ জয়িতার সম্মাননা লাভ।
||
  • Update Time : আগস্ট, ২৭, ২০২৩, ৭:২৯ পূর্বাহ্ণ

ধর্ষণের অভিযোগে বিটিআরসি কর্মকর্তা সনজিব কুমার গ্রেপ্তার!

এম রাসেল সরকার: বিয়ের প্রলোভনে এক নারীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) উপ-পরিচালক সনজিব কুমার সিংকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৬ আগস্ট) ভুক্তভোগী নারী ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ধানমন্ডি থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পরেই সনজিবকে গ্রেপ্তার করে ধানমন্ডি থানা পুলিশ।

ধানমন্ডি সূত্রে জানা যায়, গ্রেপ্তার সনজিব ময়মনসিংহের আরকে মিশন রোড এলাকার বাসিন্দা ও গৌরাঙ্গ চন্দ্র সিংয়ের ছেলে। চাকরি সূত্রে ধানমন্ডি এলাকায় থাকতেন সনজিব। তিনি বিটিআরসির লিগ্যাল অ্যান্ড লাইসেন্সিং বিভাগের উপ-পরিচালক হিসেবে কর্মরত।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পারভেজ ইসলাম।

তিনি বলেন, এক নারী মামলার পরিপ্রেক্ষিতে সনজিবকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের সনজিবের মোবাইল তল্লাশি করে ভুক্তভোগীর আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারের পর তাকে আদালতে পাঠানো হয় সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে। পরে আদালত তাকে জেল গেটে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দিয়েছেন।

দিকে মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, সনজিব ধর্ম পরিবর্তন ও বিয়ে আশ্বাসে ভুক্তভোগীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। বিভিন্ন প্রলোভনে ভিক্টিমকে বিয়ের আশ্বাসে একাধিক বার ধর্ষণ করেন। যখন ভিক্টিম বুঝতে পারেন সনজিব তার সঙ্গে প্রতারণা করছেন তখন তিনি সম্পর্ক ছিন্ন করার চেষ্টা করেন। কিন্তু সনজিব ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে দীর্ঘদিন ওই নারীকে ধর্ষণ এবং শারীরিক ভাবে নির্যাতন করেন।

আরও জানা যায়, গত ১৫ আগস্ট ভিক্টিমকে সনজিব তার ধানমন্ডির বাসায় ডেকে নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে কাঁচের বোতল দিয়ে আঘাত করেন। এরপর আহত অবস্থায় কৌশলে ভুক্তভোগী ওই নারী বাড়ি থেকে চলে আসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও পড়ুন